Marriage

হায়েজ ও নিফাস সংক্রান্ত ৬০ টি প্রশ্ন

Posted on

সংকলকঃ মুহাম্মদ ইবন সালেহ আল উসাইমিন

অনুবাদঃ আব্দুল আলিম বিন কাউসার

সম্পাদনাঃ আবু বকর মুহাম্মদ যাকারিয়া

মহিলাদের হায়েজ ও নিফাস (স্রাব ও প্রসূতি) অবস্থার বিধিবিধান সংক্রান্ত ৬০টি প্রশ্ন: গ্রন্থটিতে হায়েয ও নেফাস বিষয়ক ৬০টি বিধান বর্ণিত হয়েছে। কিভাবে পবিত্র হবে, কিভাবে নামায পড়বে, কিভাবে রোযা রাখবে, কিভাবে হজের রুকন আদায় করবে এ বিষয়গুলো প্রশ্নোত্তরের মাধ্যমে স্পষ্ট করা হয়েছে।

Download

ইসলামের দৃষ্টিতে “ভ্যালেন্টাইন’স ডে” বা “ভালবাসা দিবস”

Posted on

সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য, এবং আল্লাহর পক্ষ থেকে শান্তি ও কল্যাণ বর্ষিত হোক তাঁর সর্বশেষ নবী মুহাম্মাদ (সা.)-এঁর ওপর, তাঁর পরিবার এবং সাহাবীগণের ওপর, এবং সেই সকল লোকদের ওপর, কিয়ামত পর্যন্ত যারা সত্যের পথ অনুসরণ করবে ৷

আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা আমাদের জন্য ইসলামকে দ্বীন বা জীবন-ব্যবস্থা হিসেবে বাছাই করেছেন এবং তিনি অন্য কোন জীবন-ব্যবস্থা কখনও গ্রহণ করবেন না, তিনি বলেন:
“এবং যে কেউই ইসলাম ছাড়া অন্য কোন জীবন-ব্যবস্থা আকাঙ্খা করবে, তা কখনোই তার নিকট হতে গ্রহণ করা হবে না, এবং আখিরাতে সে হবে ক্ষতিগ্রস্তদের একজন ৷” (সূরা আলে ইমরান, ৩:৮৫)

এবং নবী(সা.) বলেছেন, এই উম্মাতের মধ্যে কিছু লোক বিভিন্ন ইবাদতের প্রক্রিয়া ও সামাজিক রীতিনীতির ক্ষেত্রে আল্লাহর শত্রু দের অনুসরণ করবে ৷ আবু সাঈদ আল খুদরী(রা.) বর্ণিত যে রাসূলুল্লাহ(সা.) বলেন:

“তোমরা অবশ্যই তোমাদের পূর্ববর্তীদের অনুসরণে লিপ্ত হয়ে পড়বে, প্রতিটি বিঘৎ, প্রতিটি বাহুর দৈর্ঘ্যে [তাদের তোমরা অনুসরণ করবে], এমনকি তারা সরীসৃপের গর্তে প্রবেশ করলে, তোমরা সেখানেও তাদেরকে অনুসরণ করবে ৷” আমরা বললাম, “হে রাসূলুল্লাহ ! তারা কি ইহুদী ও খ্রীস্টান?” তিনি বললেন: “এছাড়া আর কে?” (বুখারী, মুসলিম) Read the rest of this entry »

নারী-পুরুষের অবাধ মেলামেশা, বন্ধুত্ব বা সহাবস্হানের ব্যাপারে ইসলামের হুকুম

Posted on

মুল বই: আদর্শ বিবাহ ও দাম্পত্ব, লেখক: আব্দুল হামিদ ফাইযী, লিসান্স মদীন বিশ্ববিদ্যালয়।

সংহ্মিপ্ত পরিচিতি: এখানে ইসলামের আলোকে নিচের বিষয়গুলিকে বিশ্লেষন করা হয়েছে-

১. দেবর-ভাবি, শালি-বুনাই, ডাক্তার-নার্স, তথা নারী-পুরুষের অবাধ মেলামেশা ও কথোপকথন

২. মহিলাদের একাকী সফর করা

৩. স্বামীর অবর্তমানে স্ত্রীর সাথে  গম্য আত্মীয় বা অন্য পুরুষের গমন বা সাহ্মাত Read the rest of this entry »

রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর ১০০ টি সুন্নাত (সহীহ হাদীস দ্বারা প্রমানিত)/100 sunnah of Rasullah sw

Posted on

“বলুন, যদি তোমরা আল্লাহকে ভালবাস, তাহলে আমাকে অনুসরণ কর, যাতে আল্লাহ ও তোমাদিগকে ভালবাসেন এবং তোমাদিগকে তোমাদের পাপ মার্জনা করে দেন। আর আল্লাহ হলেন ক্ষমাকারী দয়ালু।“ (আল ইমরান:৩১)

ভাষা: বাংলা

প্রকাশনা: মক্তব তাওয়িয়াতুল জালিয়াত আল জুলফি, সৌদি আরব

শিরনাম: রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর ১০০ টি সুন্নাত (সহীহ হাদীস দ্বারা প্রমানিত)/100 sunnah of Rasullah sw Read the rest of this entry »

ফতোয়া আরকানুল ইসলাম- Fatwah Arkanul Islam

Posted on

সংক্ষিপ্ত বর্ণনাঃ [ইসলামি জ্ঞানের জগতে “ফতোয়া আরকানুল ইসলাম” অত্যন্ত মূল্যবান বই। ইসলামের বিভিন্ন মাসআলা সম্পর্কে মানুষের প্রশ্নের অন্ত নেই, কিন্তু কোরআন এবং সহীহ হাদীসের আলোকে এগুলোর জবাব পাওয়া অত্যন্ত কঠিন ।আর বাংলাদেশে তো প্রায় অসম্ভব। তাই নির্ভরযোগ্য প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন, যুগের অন্যতম সেরা গবেষক আল্লামা শায়খ মুহাম্মাদ বিন সালেহ আল উসাইমীন (রহঃ) ঐ সকল জিজ্ঞাসার দলীল ভিত্তিক নির্ভরযোগ্য জবাব প্রদান করেছেন। প্রতিটি জবাব পবিত্র কুরআন ও রাসুলূল্লাহ (সাঃ) এর বিশুদ্ধ হাদীস ও পুর্বসুরী নির্ভরযোগ্য উলামাদের মতামত থেকে দেয়া হয়েছে। আশা করি পাঠকের মনের মাঝে লুকিয়ে থাকা অনেক প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন এ বই থেকে।] Read the rest of this entry »

স্বামী-স্ত্রীর অধিকার

Posted on

বিবাহ স্বামী-স্ত্রীর মাঝে একটি সুদৃঢ় বন্ধন। আল্লাহ তাআলা এর চির স্থায়িত্ব পছন্দ করেন, বিচ্ছেদ অপছন্দ করেন। এরশাদ হচ্ছে:

তোমরা কীভাবে তা (মোহরানা) ফেরত নিবে ? অথচ তোমরা পরস্পর শয়ন সঙ্গী হয়েছ এবং তোমাদের নিকট সুদৃঢ় অঙ্গীকার গ্রহণ করেছে।’ [নিসা : ২১]

এ চুক্তিপত্র ও মোহরানার কারণে ইসলাম স্বামী-স্ত্রী উভয়ের মাঝে কতক দায়দায়িত্ব ও অধিকার নিশ্চিত করেছে। যা বাস্তবায়নের ফলে দাম্পত্য জীবন সুখী ও স্থায়ী হবে—সন্দেহ নেই। সে সব অধিকারের প্রায় সবগুলোই সংক্ষেপ আকারে বর্ণিত হয়েছে কোরআনের আয়াতে:

যেমন নারীদের উপর অধিকার রয়েছে, তেমন তাদের জন্যও অধিকার রয়েছে ন্যায্য-যুক্তিসংগত ও নীতি অনুসারে। তবে নারীদের উপর শ্রেষ্ঠত্ব পুরুষদের। আল্লাহ পরাক্রমশালী, প্রজ্ঞাময়।’ [বাকারা : ২২৭] Read the rest of this entry »

ইসলাম পুরুষদের বহুবিবাহের অনুমতি দেয় কেন?

Posted on

– উত্তর দিয়েছেন ডা: জাকির আব্দুল করিম নায়েক (বাংলা)

 

যাদের text পড়তে সমস্যা নেই তারা এখানে পড়তে পারেন:

প্রশ্নঃ ইসলাম একজন পুরুষকে একাধিক স্ত্রী রাখার অনুমতি দেয় কেন? অথবা ইসলামে বহু-বিবাহ অনুমোদিত কেন?

জবাব

ক. বহু-বিবাহের সংজ্ঞা

‘বহু-বিবাহ’ মানে এমন একটি বিবাহ পদ্ধতি যেখানে এক ব্যক্তির একাধিক স্ত্রী থাকে। বহু-বিবাহ দুই ধরনের- একজন পুরুষ একাধিক নারীকে বিবাহ করে। আর একটি বহু স্বামী বরণ। অর্থাৎ একজন স্ত্রীলোক একাধিক পুরুষ বিবাহ করে। ইসলামে পুরুষের জন্য সীমিত সংখ্যক ‘বহু-বিবাহ’ অনুমোদিত। অপর দিকে নারীর জন্য একাধিক পুরুষ বিবাহ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ‘হারাম’। Read the rest of this entry »